Blog

লকডাউনে ঘরে মজুত জিনিস দিয়েই সারুন রূপচর্চা

157 Views0 Comment

লকডাউনে বাড়ি থেকে বেরনো মানা, খুব প্রয়োজন ছাড়া। আমরা প্রায় সকলেই মেনে চলছি সেটা। একটা কথা বলুন তো, যারা নিয়মিত বিউটি পার্লারে গিয়ে রূপচর্চা করতে অভ্যস্ত তাঁরা কী করছেন? তাঁদের কী অবস্থা? হয়ত বলবেন- “যে সময়ে দাঁড়িয়ে বাঁচা-মরার প্রশ্নের সম্মুখীন আমরা সেই সময়ে এহেন রূপচর্চার কথা আসে কী ভাবে?” একশভাগ খাঁটি কথা। পাশাপাশি এটাও সত্যি, মানুষ আশা নিয়েই বাঁচে। মানুষ স্বপ্ন নিয়ে বাঁচে। তাই সে ভাল খায়, ভাল পরে আর ভাল সাজে। নিজের বাহিরটা ঝকঝকে না থাকলে ভিতরটাও ঝকঝকে থাকবে না।

আরও একটা কথা আমি ব্যক্তিগতভাবে বিশ্বাস করি, মন খারাপের দিনে একটু সাজুগুজু করে নিলে নিমেষে মনটা ফুরফুরে হয়ে যায়। তাই সাজতে মানা নেই। ঝড়-ঝঞ্ঝা যা’ই আসুক না কেন, নিজেকে চকচকে রাখলে মন ভাল থাকবে। আর সেই ভাল থাকা মন নিয়ে লড়াই করাও সহজ হবে।
মানুষ পরিস্থিতির দাস। আর আজ যে সময়ে এসে ঠেকেছে আমাদের জীবন সেই সময়ে বিউটি পার্লারে গিয়ে ফেসিয়াল, স্পা, মেনিকিওর, পেডিকিওর, আইব্রো কোনওটাই করা সম্ভব হচ্ছে না। যারা মারাত্মক রূপসচেতন তাদের জন্য সত্যিই খুব চিন্তার ব্যাপারটা। আয়নার সামনে দাঁড়ালে নিজেকে নিজের ভাল লাগছে না। এমনিতেই করোনা পরিস্থিতিতে আমরা সকলেই খুব বিরক্ত হয়ে আছি। অনেকে খিটখিটেও হয়ে গেছি। এই সময়ে নিজেকে ম্যাড়ম্যাড়ে দেখলে মেজাজ হয়ে যাচ্ছে আরও খাট্টা। তাই বলি কি, ঘরেই করুন রূপচর্চা। তাতে জৌলুসও বজায় থাকবে আবার মনটাও ভাল থাকবে সঙ্গে সময়টাও কেটে যাবে।
কী ভাবে ঘরে বসেই নিজের যত্ন আত্তি করবেন তার উপায় বাতলে দিলেন রূপ বিশেষজ্ঞ ডঃ ডলি গুপ্তা।

তিনি যে উপদেশ দিলেন তার কিছু অংশ রইল এই কলমে।
মোবাইল, ট্যাব, ল্যাপটপ থেকে বেরিয়ে আসা রশ্মি আমাদের ত্বকের অনেক ক্ষত করে। তাই ঘুমোতে যাওয়ার ঘণ্টা দুয়েক আগে ওগুলিকে নিজের কাছ থেকে সরিয়ে ফেলতে হবে।
বাড়িতে মজুত জিনিস দিয়ে ত্বক রাখা যাবে টানটান। ওটস, মধু, বেসন, দুধ, শশা, আলু দিয়ে খুব ভাল ত্বকের যত্ন নেওয়া যায়।
মধু, গুড়ো দুধ আর ওটস সহযোগে একটি প্যাক বানিয়ে ত্বকে লাগালে ত্বক নিমেষে মসৃণ হবে।
আলুর রস ত্বক পরিষ্কার করে৷ সেটাও মাঝে মাঝে ত্বকে মেখে নেওয়া যায়। চুল ভাল রাখতে ভিনিগার কাজে লাগাতে পারেন। একইভাবে পেঁয়াজের রসও চুল ভাল রাখতে সহায়তা করে৷
আজকাল আমরা বারবার অ্যালকোহল যুক্ত স্যানিটাইজার দিয়ে হাত ধুচ্ছি। ফলে, ত্বক হয়ে উঠছে খসখসে। এক্ষেত্রে হাত ধোওয়ার পর ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করার কথা বলেছেন তিনি। মাস্ক ধুতে হবে ঈষদোষ্ণ গরম জলে। এহেন আরও অনেক টিপস দিয়েছেন তিনি৷
ডঃ ডলি গুপ্তার এই গাইডলাইন মেনে ঘরে বসে রূপচর্চা করলে রূপ লাবণ্য টিকে থাকবে অনেকদিন। ডঃ ডলি গুপ্তা কী বললেন তা তাঁর কাছ থেকে সরাসরি জানতে হলে দেখতে হবে ভিডিওটি।

– নবনীতা দত্তগুপ্ত