Blog

হৃদয়কে ভালোবেসে…

280 Views0 Comment

আচ্ছা, আমরা কাকে সবথেকে বেশি ভালোবাসি? কেউ বলবে মা’কে, কেউবা বাবা আবার কেউ বলবে তার জীবনের বিশেষ কোনও মানুষের কথা। আবার কেউ সদর্পে বলবে- “আমি নিজেকে সবথেকে বেশি ভালোবাসি।” আর এটাই হল সত্যিকারের ‘সত্য বচন’। মানুষ নিজেকে, নিজের জীবনকে সবথেকে বেশি ভালোবাসে। আর জীবনকে ভালোবাসা মানে নিজের হৃদয়কে ভালোবাসা, নিজের হৃদপিণ্ডটাকে ভালোবাসা। আর তাই তার যত্ন নিতে আমাদের কত না আয়োজন। একটু অসুবিধার সম্মুখীন হলেই চিকিৎসকের কাছে দরবার করতে এক মিনিটও নষ্ট করতে চাই না আমরা কেউ। কিন্তু এহেন উদ্যোগ নিতে আমরা সকলেই কি পারি? সকলের কি ক্ষমতা আছে চটজলদি চিকিৎসকের কাছে ছুটে যাওয়ার? যাদের নেই তাদের কথা ভাবে ক’জন? কিন্তু কেউ না কেউ তো সত্যিই ভাবে।…

‘রোটারি ক্লাব অফ ক্যালকাটা ওল্ড সিটি’ ভালোবাসে মানুষের হৃদয়কে। আর তাই গত তিন বছর ধরে ‘ড্রাইভ হৃদয়া’ শিরোনামের একটি সমাজ সচেতনমূলক কাজ করে আসছে এই প্রতিষ্ঠান। ‘ড্রাইভ হৃদয়া’র বিষয় হল ‘কার র‍্যালি’। ২০১৭-তে এই উদ্যোগের শুরুয়াত। প্রথম বছরেই দারুণ সাড়া মিলেছিল ‘ ড্রাইভ হৃদয়া’র। প্রথম বছরেই ৭০ টি গাড়ির হাজিরা ছিল ‘ড্রাইভ হৃদয়া’তে। ২০২০-তে তা বেড়ে দাঁড়াল ১৭০-এ।
কার র‍্যালি থেকে উঠে আসা টাকা দান করা হয় দরিদ্র শিশুদের চিকিৎসার জন্য। এমন অনেক দরিদ্র শিশু রয়েছে যারা হৃদরোগে আক্রান্ত। টাকার অভাবে অকালে ঝরে যাচ্ছে তাদের প্রাণ। তাদের পাশে দাঁড়াতেই এহেন উদ্যোগ বলে জানা গিয়েছে প্রতিষ্ঠানের তরফে।

যে সময়ে শিশুদের মাঠে ছুটে বেড়ানোর কথা সেই সময়ে যেসব শিশু করুণ দৃষ্টিতে বুকের যন্ত্রণা বুকে চেপে ধরে দিনযাপন করে সেই সব শিশুদের মুখে হাসি ফোটাতে ‘রোটারি ক্লাব অফ ক্যালকাটা ওল্ড সিটি’র এই উদ্যোগ নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয়। তাদের এই সাধু উদ্যোগে পাশে দাঁড়িয়েছে ‘জাস্ট স্টুডিও’।
এক রৌদ্রোজ্জ্বল সকালে ‘রোটারি ক্লাব অফ ক্যালকাটা ওল্ড সিটি’র উদ্যোগে আয়োজিত এই মহান কর্মকাণ্ডের সাক্ষী ছিলেন অসংখ্য মানুষ। এহেন উদ্যোগ আগামীদিনে সমাজসেবার ক্ষেত্রে এক বড় নজির গড়বে তা বলাই বাহুল্য।
এদিনের অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন মীর, অভিনেত্রী-প্রযোজক সুচন্দ্রা ভানিয়া সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রের স্বনামধন্য ব্যক্তিত্বরা। ‘জাস্ট স্টুডিও’র ক্যামেরা তাঁদের বন্দি করেছে যত্ন সহকারে।

– নবনীতা দত্তগুপ্ত